Pitara logo

কলাবতী রাজকন্যা - (৬) - (৭)

(৬)

মস্ত দরবার করিয়া রাজা রাজসভায় বসিয়াছেন। ভূতুম আর বুদ্ধুু। গিয়া সেইখানে উপস্থিত হইল। দুয়ারী জিজ্ঞাসা করিল, “তােমরা কে?

বুদ্ধু বলিল, “বানররাজপুত্র।” ভূতুম্ বলিল, “পেঁচারাজপুত্র।” দুয়ারী দুয়ার ছাড়িয়া দিল।

তখন বুদ্ধু এক লাফে গিয়া রাজার কোলে বসিল। ভূতুম উড়িয়া গিয়া রাজার কাঁধে বসিল। রাজা চমকিয়া উঠিলেন; রাজসভায়। সকলে ‘হাঁ! হাঁ!’ করিয়া উঠিল।

বুদ্ধু ডাকিল, “বাবা” ভূতুম ডাকিল, “বাবা!”

রাজসভার সকলে চুপ। রাজার চোখ দিয় ট-টস্ করিয়া জল গড়াইয়া গেল। রাজা ভূতুমের গালে চুমা খাইলেন, বুদ্ধুুকে দুই হাত। দিয়া বুকে তুলিয়া লইলেন।

তখনি রাজসভা ভাঙ্গিয়া দিয়া বুদ্ধু আর ভূতুমকে লইয়া রাজা উঠিলেন।

(৭)

এদিকে তাে সাজ সাজ পড়িয়া গিয়াছে। পাঁচ নিশান উড়াইয়া ময়ূরপঙ্খী নৌকা পাঁচখানা ময়ূরপঙ্খী আসিয়া, ঘাটে লাগিল। রাজপুত্রেরা তাহাতে উঠিলেন। রাণীরা হুলুধ্বনি দিয়া পাঁচ রাজপুত্রকে কলাবতী রাজকন্যার দেশে পাঠাইলেন।

সেই সময়ে ভূতুম আর বুদ্ধুকে লইয়া, রাজা যে, নদীর ঘাটে আসিলেন। বুদ্ধু বলিল, “বাবা, ও কি যায় ?” রাজা বলিলেন, – “ময়ূরপঙ্খী।” বুদ্ধু বলিল, “বাবা, আমরা ময়ূরপঙ্খীতে যাইব; আমাদিগে ময়ূরপঙ্খী দাও।”

ভূতুম বলিল, “বাবা, ময়ূরপঙ্খী দাও।” রাণীরা সকলে কিল কিল করিয়া উঠিলেন— “কে লাে, কে লাে, বাঁদীর ছানা নাকি লাে?” “কে লাে, কে লাে, খুঁটে-কুড়ানীর ছা নাকি লাে?” “ও মা, ও মা, ছি! ছি!”

রাণীরা ভূতুমের গালে ঠোনা মারিয়া ফেলিয়া দিলেন, বুদ্ধুর গালে চড় মারিয়া ফেলিয়া দিলেন। রাজা আর কথা কহিতে পারিলেন না; চুপ করিয়া দাঁড়াইয়া রহিলেন।

রাণীরা রাগে গরগর করিতে করিতে রাজাকে লইয়া রাজপুরীতে চলিয়া গেলেন।

বুদ্ধু বলিল, “দাদা?” ভূতুম বলিল, “ভাই?”

বুদ্ধু- “চল আমরা ছুতােরবাড়ী যাই, ময়ূরপঙ্খী গড়াইব; রাজপুত্রেরা যেখানে গেল, সেইখানে যাইব।” ভূতুম বলিল, “চল।”

কলাবতী রাজকন্যা - (৮) - (৯)